অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ইউপি নির্বাচনে সহিংসতায় কিশোরসহ দুজন নিহত


প্রতীকী ছবি (অ্যাডবি স্টক)

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন চলাকালে সংঘর্ষে কিশোরসহ দুজন নিহত এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উপজেলার নলুয়া ইউনিয়ন ও বাজালিয়া ইউনিয়নে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলো বাজালিয়া ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের মো. আব্দুর শুক্কুর (৩৪) ও নলুয়া ইউনিয়নের মরফলার বোর্ড অফিস এলাকার জসিম উদ্দিনের ছেলে তাসিফ (১৩)। তাসিফ মরফলা আরএমএন উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র।।

সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আবু তালেব তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, সোমবার দুপুরে নলুয়া ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মরফলা ভোট কেন্দ্র দখল নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সেখানে ছুরিকাঘাতে তাসিফ (১৩) নামে এক কিশোর নিহত হয়।

নিহতের স্বজনরা এই ঘটনায় নৌকা প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের দায়ী করেছেন ।

এদিকে সকাল ১০টার দিকে বাজালিয়া ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সংঘর্ষ হয়। এতে গুরুতর আহত হন আব্দুর শুক্কুর। পরে তাকে স্থানীয় কেরানীহাট মা ও শিশু হাসপাতালে নিয়ে গেলে দুপুর ১টার দিকে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কেরানীহাট মা ও শিশু হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মো. রাকিব উদ্দিন বলেন, “বেলা ১১টার দিকে শুক্কুর নামে একজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ছিলেন তিনি। পরে তিনি মারা যান।

পুলিশ জানায়, ভোট গ্রহণ শুরু হওয়ার কিছু সময় পর সকাল ১০টার দিকে খাগরিয়া ৬ ও ৭ নম্বর ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আকতার হোসেন ও স্বতন্ত্র মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী জসিম উদ্দিনের সমর্থকদের মধ্যে কয়েক দফা সংঘর্ষ হয়। এ সময় দুই গ্রুপের মধ্যে কয়েক রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়।

এদিকে সংঘর্ষে পর জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) এস এম রশিদুল হক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ওমর ফারুক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তারা কেন্দ্র দুটিতে সাময়িকভাবে ভোট বন্ধের জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেন।

এ ব্যাপারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ওমর ফারুক জানান, দুই কেন্দ্রে সাময়িক ভোট বন্ধ করা হয়েছে। জেলা প্রশাসকের নির্দেশনা পেলে স্থায়ীভাবে ভোট বন্ধ করা হবে।

সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আবদুল জলিল জানান, ভোটকেন্দ্রে দুই পক্ষের মধ্যে ঝামেলা হয়েছে। ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনাও ঘটে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে।

XS
SM
MD
LG