অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী জব্বারের বলীখেলায় চ্যাম্পিয়ন জীবন বলী


বলীখেলায় চ্যাম্পিয়ন জীবন বলী

বাংলাদেশের চট্টগ্রামের, ঐতিহ্যবাহী জব্বারের বলীখেলার ১১৩ তম আসরে, চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন কক্সবাজারের চকরিয়ার জীবন বলী।কুমিল্লার শাহজালাল বলীকে হারিয়ে, তিনি বিজয়ের মুকুট অর্জন করেন। এর আগে ১০৯তম আসরেও তিনি চ্যাম্পিয়ন ছিলেন।

সোমবার (২৫ এপ্রিল) বিকালে, লালদীঘি সংলগ্ন জেলা পরিষদ মার্কেট চত্বরে,বালুর তৈরী অস্থায়ী মঞ্চে এ বলী খেলা (কুস্তি প্রতিযোগিতা) অনুষ্ঠিত হয়।

জীবন বেশ কয়েকবার শাহজালালকে ধরাশায়ী করার চেষ্টা করেও পারেননি।শেষ মুহূর্তে পয়েন্ট ভিত্তিতে তারিকুল ইসলাম জীবনকে বিজয়ী ঘোষণা করেন খেলার রেফারি আব্দুল মালেক।

করোনার মহামারির কারণে, দুই বছর বন্ধ থাকার পর, ঐতিহ্যবাহী এ বলীখেলা ও মেলার ১১৩তম আসর বসলো এবার। প্রতিযোগিতায় অংশ নেন, চট্টগ্রাম,কক্সবাজার, নোয়াখালী ও কুমিল্লাসহ বিভিন্ন অঞ্চলের অসংখ্য বলী।

জব্বারের এই বলী খেলায় এবার প্রথম রাউন্ড, কোয়ার্টার ফাইনাল (চ্যালেঞ্জিং বাউট), সেমি ফাইনাল ও ফাইনালে (চ্যাম্পিয়ন বাউট) মোট ৭২ জন বলী অংশ নেন।

বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ-সিএমপি’র কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর।

উল্লেখ্য, ১৯০৯ সালে, ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনে লড়তে, তরুণ যুবকদের শারীরিকভাবে তৈরি করতে, এই বলী খেলার প্রচলন করেছিলেন, চট্টগ্রামের বদরপাতি এলাকার বাসিন্দা আবদুল জব্বার।

বাংলাদেশের চট্টগ্রামের, ঐতিহ্যবাহী জব্বারের বলীখেলার ১১৩ তম আসরে, চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন কক্সবাজারের চকরিয়ার জীবন বলী।কুমিল্লার শাহজালাল বলীকে হারিয়ে, তিনি বিজয়ের মুকুট অর্জন করেন। এর আগে ১০৯তম আসরেও তিনি চ্যাম্পিয়ন ছিলেন।

সোমবার (২৫ এপ্রিল) বিকালে, লালদীঘি সংলগ্ন জেলা পরিষদ মার্কেট চত্বরে,বালুর তৈরী অস্থায়ী মঞ্চে এ বলী খেলা (কুস্তি প্রতিযোগিতা) অনুষ্ঠিত হয়।

জীবন বেশ কয়েকবার শাহজালালকে ধরাশায়ী করার চেষ্টা করেও পারেননি।শেষ মুহূর্তে পয়েন্ট ভিত্তিতে তারিকুল ইসলাম জীবনকে বিজয়ী ঘোষণা করেন খেলার রেফারি আব্দুল মালেক।

করোনার মহামারির কারণে, দুই বছর বন্ধ থাকার পর, ঐতিহ্যবাহী এ বলীখেলা ও মেলার ১১৩তম আসর বসলো এবার। প্রতিযোগিতায় অংশ নেন, চট্টগ্রাম,কক্সবাজার, নোয়াখালী ও কুমিল্লাসহ বিভিন্ন অঞ্চলের অসংখ্য বলী।

জব্বারের এই বলী খেলায় এবার প্রথম রাউন্ড, কোয়ার্টার ফাইনাল (চ্যালেঞ্জিং বাউট), সেমি ফাইনাল ও ফাইনালে (চ্যাম্পিয়ন বাউট) মোট ৭২ জন বলী অংশ নেন।

বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ-সিএমপি’র কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর।

উল্লেখ্য, ১৯০৯ সালে, ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনে লড়তে, তরুণ যুবকদের শারীরিকভাবে তৈরি করতে, এই বলী খেলার প্রচলন করেছিলেন, চট্টগ্রামের বদরপাতি এলাকার বাসিন্দা আবদুল জব্বার।

XS
SM
MD
LG