অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ঈদের পর রাত ১০টার মধ্যেই বর্জ্য অপসারণ করা হবে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম


পবিত্র ঈদুল আযহার পর, রাত ১০টার মধ্যে পশুর বর্জ্য অপসারণ করা হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) মন্ত্রণালয়ে, জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সির (জাইকা) কান্ট্রি রিপ্রেজেনটেটিভ ইউহো হায়াকাওয়ার নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক করেন মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। পরে, সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “ঈদের দিন সকালে পশু কোরবানির দেয়া শুরু হবে। এরপর থেকেই পশুর বর্জ্য অপসারণ কাজ শুরু হবে। সন্ধ্যা ৭টা থেকে ১০টার মধ্যে সব জায়গা থেকেই বর্জ্য অপসারণ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক, জনপ্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। রাত ১০টার পর কোথাও বর্জ্য থাকবে না বলে আশা করছি।”

স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বলেন, “কোরবানির পশুর হাটের সুচারু ব্যবস্থাপনা ও শান্তিপূর্ণভাবে ঈদ উদযাপনের পরিবেশ নিশ্চিত করতে, ইতোমধ্যে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা করা হয়েছে। সভায় প্রতিটি মন্ত্রণালয়ের যে দায়িত্ব সেটি পালনের জন্য সিদ্ধান্ত দেয়া হয়েছে।”

তাজুল ইসলাম বলেন, “স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন করার জন্য, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের গাইডলাইন আছে। সেটা অনুযায়ী তারা পশুর হাট বসাবে। হাটে ক্রয়-বিক্রয়ের জন্য যারা আসবেন, তাদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। সড়কের পাশে কোথাও হাট বসবে না।”

বাংলাদেশ ব্যাংক ও সিটি করপোরেশন ঈদ উপলক্ষে যৌথভাবে একটা প্রোগ্রাম চালু করেছে বলে জানান স্থানীয় সরকারমন্ত্রী। বলেন, কর্মসূচিটি হলো ক্যাশ টাকা ছাড়াই পশু ক্রয়-বিক্রয় করা। হাটে কেউ ক্যাশ টাকা না নিলেও হবে ,যদি তার কাছে ক্রেডিট কার্ড থাকে। এছাড়া, অ্যাকাউন্টে টাকা থাকলেও, সেই টাকা বিক্রেতার অ্যাকাউন্টে ট্রান্সফার করে দেয়া হবে।”

XS
SM
MD
LG