অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কোনো শিক্ষার্থীকে কোচিং নিতে বাধ্য করা যাবে না: শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি


শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি

বাংলাদেশের শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছেন, “কোনো শিক্ষক আর নিজের ক্লাসের শিক্ষার্থীকে কোচিংয়ে পড়াতে পারবেনা না। এটি বন্ধে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক কোচিং চালু করার কথা বলা হয়েছে আইনে। তবে কোনো শিক্ষার্থীকে কোচিং নিতে বাধ্য করা নিষিদ্ধ।”

শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) সকালে চাঁদপুর স্টেডিয়ামে বিসিবি কাউন্সিল কাপ টি-২০ ক্রিকেটে টুর্নামেন্ট উদ্বোধন করার পর, সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী।

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, “শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন কারণে কোচিংয়ের দরকার হয়। তাদের বিভিন্ন ধরনের পরীক্ষা রয়েছে। সেগুলোর জন্য প্রস্তুতির দরকার হয়। তাছাড়া আমাদের প্রায় প্রত্যেকটি স্কুলে শ্রেণীকক্ষে শিক্ষার্থীর সংখ্যা অনেক বেশি।সেখানে একজন শিক্ষকের পক্ষে প্রতিটি শিক্ষার্থীর দিকে সমানভাবে নজর দেয়া সম্ভব হয় না। তাতে অনেকে হয়তো ক্লাসে পিছিয়ে পড়তে পারে। অনেকের বাবা-মাও হয়তো সহযোতগিতা করতে পারে না। তাই সে ক্ষেত্রে কখনও কখনও শিক্ষার্থীর কোচিংয়ের দরকার হতে পারে। আমরা তার বিকল্প হিসেবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিক্তিক কোচিং ব্যবস্থা চালু করার কথা বলেছি আইনে।”

দীপু মনি বলেন, “কেউ কেউ হয়তো ক্লাসে না পড়িয়ে, শিক্ষার্থীকে বাড়িতে বা কোচিং সেন্টারে পড়াতে বাধ্য করে। সেখানে না পড়লে তাকে হয়তো পরীক্ষায় ফেল করিয়ে দেয়া হয়, কম নম্বর দেয়া হয়। এ বিষয়টা একেবারের অনৈতিক, এটি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কোনো শিক্ষক আর নিজের ক্লাসের শিক্ষার্থীকে কোচিংয়ে পড়াতে পারবেন না।”

XS
SM
MD
LG