অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সমুদ্রে নিরাপদ পরিবেশ নিশ্চিত করা গেলেই সমৃদ্ধ অর্থনীতি সম্ভব—প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সমুদ্রে নিরাপদ পরিবেশ নিশ্চিত করা গেলেই সমৃদ্ধ অর্থনীতি সম্ভব।

বুধবার (৭ ডিসেম্বর) তিনি বলেন, ‘একটি সমৃদ্ধ অর্থনীতি তখনই সম্ভব, যখন আমরা সমুদ্রে নিরাপদ ও সুরক্ষিত পরিবেশ নিশ্চিত করতে পারি। সে লক্ষ্যে আমরা আমাদের সমুদ্র সম্পদ রক্ষায় পরিকল্পিত সক্ষমতা বৃদ্ধিসহ সময়ের সঙ্গে সঙ্গে গুণগত উন্নয়নমূলক কর্মসূচির মাধ্যমে আমাদের নৌবাহিনীর আধুনিকায়ন করে যাচ্ছি’।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নৌবাহিনীর অংশগ্রহণে কক্সবাজারের ইনানীতে চার দিনব্যাপী ইন্টারন্যাশনাল ফ্লিট রিভিউ (আইএফআর) ২০২২-এর উদ্বোধনকালে শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

“ফ্রেন্ডশিপ বিয়ন্ড দ্য হরাইজন” থিম নিয়ে বাংলাদেশ নৌবাহিনী প্রথমবারের মতো আইএফআরের আয়োজন করেছে। এতে চীন, ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, মিয়ানমার, থাইল্যান্ড ও মালয়েশিয়াসহ বন্ধুত্বপূর্ণ দেশগুলোর নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ ও প্রতিনিধিরা রয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘অবাধ আন্তর্জাতিক বাণিজ্য নিশ্চিত করার জন্য নিরাপদ সমুদ্র অপরিহার্য। কারণ বর্তমানে বিশ্বের ৯০ শতাংশ বাণিজ্য সমুদ্রপথ দিয়ে হয়’।

তিনি আরও বলেন, ‘সামুদ্রিক বাণিজ্য, অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি এবং সমুদ্রসম্পদ আহরণ ও অনুসন্ধানের বিশাল সুযোগ ও সম্ভাবনা রয়েছে। সামুদ্রিক সম্পদের অপার সম্ভাবনা উপলব্ধি করে আমাদের সরকার বাংলাদেশের সামুদ্রিক খাতের উন্নয়নে ব্যাপক উদ্যোগ নিয়েছে’।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ নৌবাহিনী এবং বিদেশি জাহাজের ক্রুদের বর্ণাঢ্য কুচকাওয়াজ, সিল কমান্ডোদের মহাকাশ থেকে ফ্রি-ফল জাম্প, নানা কসরৎ এবং বহরের অপারেশনাল প্রদর্শনী প্রত্যক্ষ করেন।

তিনি আইএফআরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে “বঙ্গবন্ধু ও নৌবাহিনীর ৫০ বছরে যাত্রা” শিরোনামের একটি প্রকাশনার মোড়ক উন্মোচন করেন।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন নৌবাহিনী প্রধান এডমিরাল এম শাহীন ইকবাল। এ ছাড়া দেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর অগ্রযাত্রার ওপর আলোকপাত করে একটি অডিও-ভিজ্যুয়াল উপস্থাপনা প্রদর্শিত হয়।

XS
SM
MD
LG