অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আমরা তৃণমূলে শিল্প-সংস্কৃতি প্রসারে ব্যবস্থা নিচ্ছি—প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তৃণমূলে শিল্প-সংস্কৃতির উন্নয়ন ও প্রসারে ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার।

তিনি বলেন, ‘আমরা সারা দেশে শিল্পকলা একাডেমি স্থাপনের মাধ্যমে তৃণমূলের সংস্কৃতিমনা সম্প্রদায়ের শিল্প চিন্তা, জ্ঞান ও সক্ষমতাকে দেশের মানুষের সামনে তুলে ধরার পদক্ষেপ নিচ্ছি’।

বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) রাজধানী ঢাকার বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে (বিএসএ) ১৯তম এশিয়ান আর্ট বিয়েনাল বাংলাদেশ উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন। তিনি তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি এ অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘সরকার দেশের ভাষা, সংস্কৃতি, শিল্পকর্ম, নাটক, চলচ্চিত্র ও সৃজনশীলতার উন্নয়ন করে যাচ্ছে’।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর শিল্পকলা একাডেমির উন্নয়নে একটি মহাপরিকল্পনা তৈরি করেছে। সেখানে ন্যাশনাল থিয়েটার, এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার, স্টুডিও থিয়েটার, মিউজিক অ্যান্ড ডান্স অডিটোরিয়াম, ফাইন আর্টস অডিটোরিয়াম ও ওপেন স্টেজ তৈরি করা হয়েছে। আরও তিনটি অডিটোরিয়াম নির্মাণের কাজও চলছে’।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘সরকার ৬৪ জেলায় শিল্পকলা একাডেমির নতুন ভবন নির্মাণ করেছে। ৪৯৩টি উপজেলায় শিল্পকলা একাডেমি স্থাপন করা হয়েছে, যার অর্থ সরকার তৃণমূল পর্যায়ের মানুষের কাছে সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড তুলে ধরতে চায়’।

তিনি বলেন, ‘আমরা একদিকে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্য কাজ করছি এবং অন্যদিকে তাদের শৈল্পিক মনন বিকাশের জন্য পদক্ষেপ নিচ্ছি’।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘এসব স্থানে দেশি-বিদেশি শিল্পকর্ম সংরক্ষণ ও প্রদর্শনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। শিল্প, সঙ্গীত, নৃত্য, নাটক, চলচ্চিত্র, ঐতিহ্যবাহী লোকসংগীত বা লোকসংস্কৃতি উৎসবেরও আয়োজন করা হচ্ছে। কারণ আমরা আমাদের নিজস্ব সংস্কৃতি বিকাশের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি’।

দ্বিবার্ষিক এই প্রদর্শনী আজ থেকে আগামী ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে।

XS
SM
MD
LG