অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে কোথাও কোথাও অক্সিজেন সংকট, ১৩ জন রোগীর মৃত্যু


Oxygen

সাতক্ষীরায় অক্সিজেনের অভাবে ইতিপুর্বে ছয়জন রোগী মারা গেছেন। যা নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। খুলনায় অক্সিজেন সংকট তীব্র। একমাত্র বিশেষায়িত হাসপাতালে ১০০ শয্যার বিপরীতে রোগী রয়েছে প্রায় ২০০। যেখানে রয়েছে ৭৭টি শয্যায় কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থা।  

একদিকে কঠোর লকডাউন। অন্যদিকে অঝোর ধারায় বৃষ্টি। দিনটি শুক্রবার। সবমিলিয়ে বাংলাদেশ একদম স্তব্ধ। রাজপথ ফাঁকা। কাল যে ক'টা যানবাহন ছিল আজ তাও নেই। কাঁচাবাজারেও ভিড় কম। সেনা টহল রয়েছে যথারীতি। সক্রিয় রয়েছে বিজিবি ও পুলিশ। অলি-গলিতেও লোকজন নেই। মাঝে মধ্যে দু' একটা অ্যাম্বুলেন্স দেখা যাচ্ছে। ঢাকার বাইরের পরিস্থিতি একই। মাস্ক ছাড়া বের হলেই গুনতে হচ্ছে জরিমানা।ঢাকায় গত দুই দিনে ৮৭০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বিনাকাজে বাইরে ঘোরাঘুরির কারণে।

করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যুহার বেড়ে যাওয়ায় জনমনে রীতিমত আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। আট হাজারের ওপর দৈনিক সংক্রমণ । সর্বোচ্চ ১৪৩ জনের মৃত্যুর খবরে বিশেষজ্ঞরাই চিন্তিত। এর মধ্যে সাতক্ষীরা, খুলনা, বগুড়া, বরিশাল ও ফেনীর সোনাগাজি থেকে অক্সিজেন সংকটের খবরে পরিস্থিতি নাজুক হয়েছে।

বগুড়ায় ১৩ ঘণ্টায় মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে শ্বাসকষ্টে সাত জন রোগী মারা গেছেন। হাসপাতালটির আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. শফিক আমিন কাজল জানান, রোগীর চাপ প্রতিদিনই বাড়ছে। ২০টি হাই ফ্লো ন্যাজাল যেখানে থাকার কথা সেখানে রয়েছে মাত্র দুইটি। এই হাসপাতালে আরও ১০ জন মুমূর্ষু রোগী রয়েছেন। সাতক্ষীরায় অক্সিজেনের অভাবে ইতিপুর্বে ছয়জন রোগী মারা গেছেন। যা নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। খুলনায় অক্সিজেন সংকট তীব্র। একমাত্র বিশেষায়িত হাসপাতালে ১০০ শয্যার বিপরীতে রোগী রয়েছে প্রায় ২০০। যেখানে রয়েছে ৭৭টি শয্যায় কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থা।

বিকল্প পন্থায় টিকার যোগান হয়েছে। আজ রাতেই যুক্তরাষ্ট্র ও চীন থেকে ৩৩ লাখ ডোজ টিকা আসছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন এ তথ্য জানিয়েছেন। কোভ্যাক্সের আওতায় যুক্তরাষ্ট্রের ১৩ লাখ মডার্নার টিকা আসছে।চীন থেকে আসছে ২০ লাখ ডোজ টিকা।


XS
SM
MD
LG