অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

এলডিসি থেকে উত্তরণে বাংলাদেশকে অভিনন্দন ইউএসএআইডি’র


ইউএসএআইডির অ্যাডমিনিস্ট্রেটর সামান্থা পাওয়ার। (ছবি- ইউএসএআইডি, যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস, বাংলাদেশ)

স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে আসন্ন উত্তরণের জন্য বাংলাদেশের জনগণকে অভিনন্দন জানিয়েছে ইউএস এজেন্সি ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট ইউএসএআইডি। সংস্থাটির অ্যাডমিনিস্ট্রেটর সামান্থা পাওয়ার রবিবার ঢাকাস্থ যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে পোস্ট করা এক ভিডিওবার্তায় এই অভিনন্দন জানান।

সামান্থা বলেন, "মধ্যম আয়ের দেশের মর্যাদা অর্জনের ঐতিহাসিক মাইলফলক উদযাপন করার এই ক্ষণে ইউএসএআইডি’র তরফে বাংলাদেশিদের অভিনন্দন জানাতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত।"

তিনি বলেন, "৫০ বছর আগে স্বাধীনতার পর থেকে আপনাদের জনগণের জীবনযাত্রার উন্নতি সাধনে এবং প্রবৃদ্ধির সুযোগ উন্মোচনে বাংলাদেশের অংশীদার হতে পেরে যুক্তরাষ্ট্র নিজেকে গর্বিত মনে করে। আমরা যখন এই অসাধারণ অগ্রগতির দিকে তাকাই, তখন আমরা দেখতে পাই- বাংলাদেশ সফল হয়েছে কারণ এটি সে সকল চাহিদার ওপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করেছিল যাকে মহান কবি কাজী নজরুল ইসলাম ‘ভগ্ন হৃদয়’ বলেছেন।"

বার্তায় বলা হয়, "যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের কৃষকদের দারিদ্র্য দূর করতে, অর্থনৈতিকভাবে নারীদের ক্ষমতায়নে এবং জনগণের স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে একসঙ্গে বিনিয়োগ করেছে এবং সেসব কাজে সাফল্যও পাওয়া গেছে।

স্বাধীনতার পরের তুলনায় ধানের উৎপাদন তিনগুণ বেড়েছে। ১৯৯০ সাল থেকে নবজাতকের মৃত্যুহার দুই-তৃতীয়াংশ কমেছে। গত ২০ বছরে দারিদ্র্যের হার জাতীয়ভাবে অর্ধেকে নেমে এসেছে। এসব সাফল্য অর্জন করাটা সহজ ছিল না।"

বার্তায় সামান্থা বলেন, "এগুলোকে ভিত্তি করে আরো সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য আপনাদের দোরগোড়ায় যে মহামারী এবং শরণার্থী সংকট রয়েছে তার বিপরীতে গণতন্ত্র এবং মানবাধিকারের প্রতি অবিরত প্রতিশ্রুতি প্রয়োজন। তবে আমাদের কোনো সন্দেহ নেই যে, বাংলাদেশি জনগণের সহনশীলতা এবং উদারতা এই মাইলফলক থেকে তাদের পরবর্তী উচ্চতায় নিয়ে যাবে। আমরা আপনাদের পাশে দাঁড়াতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।"

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের স্বীকৃতি রবিবার আনুষ্ঠানিকভাবে উদযাপন করা হয়েছে বাংলাদেশে। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত এ সংক্রান্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হন তিনি।

স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের সুপারিশ গত নভেম্বরে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অনুমোদন পায়। উত্তরণের ক্ষেত্রে পাঁচ বছর প্রস্তুতির সময় পাবে বাংলাদেশ। ২০২৬ সালের ২৪ নভেম্বর বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে গণ্য হবে।

XS
SM
MD
LG