অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে করোনার টিকা নেয়ার বয়স ৩৫ থেকে কমিয়ে ৩০ বছর করা হয়েছে


করোনাভাইরাসের টিকা দিচ্ছেন একজন স্বাস্থ্যকর্মী।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সোমবার এ তথ্য জানিয়ে বলেছে যারা এই বয়স সীমায় পৌঁছেছেন তাঁরা  সোমবার থেকেই সুরক্ষা অ্যাপের মাধ্যমে টিকার নিবন্ধন করতে পারবেন। এর আগে দেশে টিকা নেওয়ার সর্বনিম্ন বয়স সীমা ছিল ৩৫ বছর।

বাংলাদেশ সরকার করোনা ভাইরাসের টিকা নেয়ার বয়স সীমা আর এক ধাপ কমিয়ে ৩০ বছর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সোমবার এ তথ্য জানিয়ে বলেছে যারা এই বয়স সীমায় পৌঁছেছেন তাঁরা সোমবার থেকেই সুরক্ষা অ্যাপের মাধ্যমে টিকার নিবন্ধন করতে পারবেন। এর আগে দেশে টিকা নেওয়ার সর্বনিম্ন বয়স সীমা ছিল ৩৫ বছর।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন সরকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর কথা বিবেচনা করে টিকাদান কর্মসূচির আওতা বাড়ানো ও বয়স সীমাকে ১৮ বছর করার জন্য কাজ করছে। তবে তিনি এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানাননি।

সোমবার করোনা ভাইরাসের টিকা নিয়েছেন বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ রাজনৈতিক দল বিএনপি'র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। করোনা আক্রান্ত হয়ে বাসায় এবং হাসপাতালে দীর্ঘদিন চিকিৎসা নেয়ার পর তাঁর ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের পরামর্শে ঢাকার মহাখালীতে অবস্থিত শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন। দুর্নীতির মামলায় কারাবাসে থাকা খালেদা জিয়া সরকারের নির্বাহী আদেশে ২০২০ সালের মার্চ মাসে মুক্তি পাওয়ার পর থেকে গুলশানে তাঁর নিজ বাসভবনে থাকছেন।

এদিকে, ঈদকে সামনে রেখে ৮ দিনের জন্য লক ডাউন শিথিল করার পর আগামী ২৩ শে জুলাই থকে ৫ই আগস্ট পর্যন্ত শুরু হতে যাওয়া কঠোর লক লক ডাউন চলা কালে নির্দিষ্ট কিছু শিল্প-কারখানা খোলা রাখার ঘোষণা দিয়েছে সরকার।

আজ এক সরকারি প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে খাদ্য ও খাদ্যদ্রব্য উৎপাদন ও প্রক্রিয়াজাতকরণ মিল-কারখানা, কোরবানির পশুর চামড়া পরিবহণ, সংরক্ষণ ও প্রক্রিয়াজাতকরণ এবং ঔষধ, অক্সিজেন ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী উৎপাদনকারী শিল্প কারখানা লক ডাউনের আওতামুক্ত থাকবে। কিন্তু পোশাক শিল্প ও কল-কারখানা খোলার বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্তের কথা প্রজ্ঞাপনে বলা হয় নাই।

XS
SM
MD
LG