অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বৃটেনে নতুন বৈশিষ্ট্যের করোনা ভাইরাস নিয়ে বাংলাদেশেও আতঙ্ক


বৃটেনে নতুন বৈশিষ্ট্যের করোনা ভাইরাস নিয়ে বাংলাদেশেও আতঙ্ক

বৃটেনে নতুন বৈশিষ্ট্যপূর্ণ করোনা ভাইরাসের বিস্তারের কারণে বাংলাদেশেও আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। বৃটেনের সঙ্গে বিমান যোগাযোগ চালু রাখা হবে কিনা তা নিয়ে চিন্তাভাবনা হচ্ছে। করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় সৌদি আরব স্থল, জল ও আকাশ পথে প্রবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে।

বৃটেনে নতুন বৈশিষ্ট্যপূর্ণ করোনা ভাইরাসের বিস্তারের কারণে বাংলাদেশেও আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। বৃটেনের সঙ্গে বিমান যোগাযোগ চালু রাখা হবে কিনা তা নিয়ে চিন্তাভাবনা হচ্ছে। করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় সৌদি আরব স্থল, জল ও আকাশ পথে প্রবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। এতে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় শ্রম বাজার ঘিরে সঙ্কট আরো গভীর হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

সৌদি নিষেধাজ্ঞার কারণে ২১ডিসেম্বর থেকে এক সপ্তাহের জন্য জেদ্দা, রিয়াদ ও দাম্মামগামী বাংলাদেশ বিমানের সকল ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। সোমবার বিমানের তরফে এই তথ্য যাত্রীদের জানিয়ে দেয়া হয়। বৃটেনের সঙ্গে বিমান যোগাযোগের বিষয়ে এখনও কোন সিদ্ধান্ত জানা যায়নি। বিষয়টি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

করোনা পরিস্থিতি ও সম্ভাব্য ভ্যাকসিন নিয়ে সোমবার আলোচনা হয়েছে মন্ত্রিসভার বৈঠকে। ওই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাস্ক ব্যবহারসহ আরো কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশনা দিয়েছেন। বৈঠকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক মন্ত্রিসভাকে জানিয়েছেন, প্রথম দফায় জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে ভারত থেকে করোনাভাইরাসের তিন কোটি ডোজ টিকা আসবে। আগামী বছরের জুনের মধ্যে কোভ্যাক্সের আওতায় আরও ছয় কোটি ডোজ টিকা পাওয়া যাবে। এই টিকা বিতরণের জন্য সারা দেশে কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে।

বৈঠকের পর মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছেন, বৈঠকে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে অনির্ধারিত আলোচনা হয়। টিকা দান কর্মসূচিতে বেসরকারি খাতকে অন্তর্ভুক্ত করা যায় কি না, এ নিয়েও আলোচনা হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তরফে জানানো হয়েছে, করোনার ভ্যাকসিন দেয়ার জন্য সারা দেশে ৬ হাজার কেন্দ্রের তালিকা করা হয়েছে। এসব কেন্দ্রের মাধ্যমে সর্বসাধারণকে টিকা দেয়া হবে।

ওদিকে সরকারি হিসাবে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আরো ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে ১ হাজার ৪৭০ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ৯ দশমিক ৩৮ শতাংশ। এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ৫ লাখ ২ হাজার ১৮৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ৩১২ জনের। ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরী

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:51 0:00
সরাসরি লিংক


XS
SM
MD
LG