অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পর্নো সাইটের পাশাপাশি বাংলাদেশে ফেসবুক আইডিও বন্ধ করা শুরু হয়েছে


বাংলাদেশে পর্নো সাইট বন্ধের পাশাপাশি ফেসবুক আইডিও বন্ধ করা হচ্ছে। এর মধ্যে ২০ হাজার পর্নো সাইট বন্ধ করা হয়েছে। আর ফেসবুক আইডি বন্ধ হয়েছে দেড় হাজার।

বাংলাদেশে পর্নো সাইট বন্ধের পাশাপাশি ফেসবুক আইডিও বন্ধ করা হচ্ছে। এর মধ্যে ২০ হাজার পর্নো সাইট বন্ধ করা হয়েছে। আর ফেসবুক আইডি বন্ধ হয়েছে দেড় হাজার।

তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার নিজেই এ তথ্য জানিয়েছেন। তার ভাষায় শিশুসহ সকল বাংলাদেশীর জন্য একটি নিরাপদ ও সুরক্ষিত ইন্টারনেট ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। বন্ধ হয়ে যাওয়া সাইটগুলোর মধ্যে বেশির ভাগই বিদেশী। গত বছরের নভেম্বরে হাইকোর্টের তরফে বাংলাদেশ সরকারকে পর্নো সাইট ও অশ্লীল কনটেন্ট প্রকাশ করা সাইটগুলোকে বন্ধ করার নির্দেশ দেয়া হয়। এর প্রেক্ষিতে পর্নো সাইটের বিরুদ্ধে এক ধরনের যুদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, ফেসবুক প্রোফাইল, ইউটিউব চ্যানেল ও ওয়েবসাইটগুলোকে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এবং গভীর নজরদারির মধ্যেও রাখা হয়েছে।

ফেসবুক আইডি বন্ধ প্রসঙ্গে মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, এদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ রয়েছে। তারা উগ্র মতবাদ, ঘৃণাসূচক মন্তব্য, বিকৃত ছবি, উস্কানিমূলক বক্তব্য ছড়িয়ে আসছিল। ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে এসব আইডি বন্ধ করার অনুরোধ জানানো হয়। উল্লেখ্য যে, দেশের জনসংখ্যা বর্তমানে প্রায় ১৭ কোটি। এর মধ্যে ৯ কোটিরও বেশি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন। ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরী।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:16 0:00

XS
SM
MD
LG