অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশি ট্রান্সজেন্ডার নারী বিউটি ব্লগারকে নির্যাতনের অভিযোগ


বাংলাদেশি ট্রান্সজেন্ডার নারী বিউটি ব্লগার সাদ মুআ

যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন বাংলাদেশি ট্রান্সজেন্ডার নারী বিউটি ব্লগার সাদ মুআ। শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ঢাকার ভাটারা থানায় একটি মামলা করেছেন। এছাড়াও ঘটনার বিবরণ পোস্ট করেছেন তার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে।

সাদ মুআ তিনজন অপরাধীর মধ্যে দুজনের ছবি প্রকাশ করে লেখেন, “তিনজনের এই হচ্ছে দুজন, যারা আমাকে আটকে রেখে আমাকে টর্চার করে সব কিছু নিয়ে নেয়। মেয়েটার নাম সায়মা শিকদার নিরা, ছেলের নাম ইশতিয়াক ফুয়াদ। এই মেয়েটাকে তারা স্যার স্যার বলে ডাকছিল। আর ওয়াকিটকিতে রাফাত বিন নুর স্যার–এর সঙ্গে কথা বলছিল আমাকে পাচার করে দেওয়ার জন্য। পরে জানলাম, সে যে রাফাত–এর কথা বলছিল, তিনি আর্মিতে চাকরি করেন; আর সে এখন মিশনে দেশের বাইরে আছে। আর ছবির ছেলেটা এয়ারফোর্সে ছিল এবং কোনো কারণবশত ওর চাকরি চলে যায়। ছেলেটি নর্থ সাউথে পড়ে আর মেয়েটা পড়ে ড্যাফোডিল–এ। অথচ ছেলেটা নিজেকে আর্মি ক্যাপ্টেন বলে পরিচয় দেয়, আর মেয়েটা নিজেকে পুলিশ কর্মকর্তা বলে পরিচয় দেয়। কোথাও কোথাও বলে যে সে নর্থ সাউথে পড়ে। এছাড়া এদের পরিচিত লোকদের থেকে জানা যায়, ওদের বসুন্ধরাতে কয়েকটা বাসা ভাড়া নেওয়া। সব জায়গাতে তারা স্বামী–স্ত্রী পরিচয়ে মাঝে মাঝে থাকে। বসুন্ধরার বাইরেও নাকি এদের বাসা আছে।”

ভাটারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজেদুর রহমান গণমাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন “মামলাটি আজ (২২ জানুয়ারি) হয়েছে। ঘটনার সম্পৃক্ততা কতটুকু তা তদন্ত করা হবে। অভিযোগ প্রমাণ হলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

উল্লেখ্য, সাদ মুআ বিউটি ব্লগার হিসেবে পরিচিত। মেকআপ টিউটোরিয়ালসহ বিউটি কেয়ারের নানা ধরনের ভিডিও কনটেন্ট বানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচিত তিনি।

XS
SM
MD
LG