অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

নির্বাচন কমিশন গঠনে সব পক্ষকে যুক্ত করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে সার্চ কমিটি


বিশিষ্ট নাগরিকদের সঙ্গে সার্চ কমিটির বৈঠক। (ছবি- মানবজমিন)

নির্বাচন কমিশন গঠন প্রক্রিয়ায় সব পক্ষকে যুক্ত করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে প্রেসিডেন্ট গঠিত সার্চ কমিটি। নির্বাচন কমিশন গঠনে পছন্দের ব্যক্তিদের নামের তালিকা পাঠাতে প্রধান বিরোধী দল বিএনপি ও সমমনা অন্য দলগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন সার্চ কমিটির প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান। যেসব দল এখনো কোনো নাম প্রস্তাব করেনি তাদের জন্য সোমবার বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত নামের তালিকা জমা দেয়ার সময় বাড়ানো হয়েছে। শেষ পর্যন্ত যেসব নামের প্রস্তাব আসবে তা ওয়েবসাইটে প্রকাশ করার ঘোষণা দিয়েছেন কমিটি প্রধান।

নির্বাচন কমিশন গঠনে যোগ্য ব্যক্তিদের খুঁজে বের করার প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে টানা দুইদিন বিশিষ্ট নাগরিকদের সঙ্গে বৈঠক করে সার্চ কমিটি। শনিবার দুই দফায় বৈঠকে ২৫ জন বিশিষ্ট নাগরিক অংশ নেন। রোববার বৈঠকে অংশ নেন ১৮ জন বিশিষ্ট নাগরিক। এই দুইদিনের বৈঠকে নির্বাচন বিশেষজ্ঞ ও বিশিষ্টজনেরা সার্চ কমিটিতে আসা নামের তালিকা প্রকাশ করার পরামর্শ দিয়েছেন। এছাড়া যেসব দল কমিশন গঠন প্রক্রিয়ায় যুক্ত হয়নি তাদের যুক্ত করারও পরামর্শ দেয়া হয় সার্চ কমিটিকে। বিশিষ্টজনদের পরামর্শ আমলে নিয়ে দ্বিতীয় দিনের বৈঠকের শুরুতেই সার্চ কমিটির প্রধান তাদের হাতে আসা নামের তালিকা প্রকাশ করার ঘোষণা দেন। একইসঙ্গে বিএনপিসহ অন্য দলগুলোকে নামের তালিকা জমা দেয়ার আহ্বান জানান।

সার্চ কমিটি প্রধানের এই আহ্বানের পর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অবশ্য এক প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন, তারা সার্চ কমিটিতে কোনো নামের তালিকা জমা দেবেন না। তিনি বলেছেন, সার্চ কমিটিতে জনগণের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। তারা মনে করেন সরকারের ইচ্ছাতেই সার্চ কমিটি কাজ করছে। তাই এখানে নাম জমা দেয়ার প্রশ্নই ওঠে না।

বিএনপি ও সমমনা দলগুলো নির্বাচন কমিশন গঠন প্রক্রিয়ায় অংশ না নেয়ার ঘোষণা দিয়ে আগেই বলেছিল, প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও নির্বাচন কমিশনার পদের জন্য তারা কোনো নামের তালিকা জমা দেবে না। বিরোধী দলগুলো বলছে, নির্বাচন কমিশন গঠনের চেয়ে এই মুহূর্তে নির্বাচনকালীন সরকার ব্যবস্থার সুরাহা করা জরুরি। বিএনপি এবং সমমনা দলের বাইরে বাসদসহ বাম দলগুলোও সার্চ কমিটিতে কোনো নামের তালিকা জমা দেয়নি। নির্বাচন কমিশনে ৩৯টি দল নিবন্ধিত। এরমধ্যে এখন পর্যন্ত ১৫টি দল কমিশন গঠন প্রক্রিয়ার বাইরে রয়েছে।

সার্চ কমিটির বেঁধে দেয়া সময় ১০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টিসহ ২৪টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল সিইসি ও ইসি পদে নিজেদের পছন্দের ব্যক্তিদের নামের সুপারিশ করেছে। সার্চ কমিটির পক্ষ থেকে দেয়া তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত তিন শতাধিক নাম জমা পড়েছে।

১৪ ফেব্রুয়ারি সোমবার বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। সোমবার আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করে বিদায় নেবে ৫ সদস্যের কমিশন। নানা সময়ে আলোচনা- সমালোচনার মুখে থাকা বর্তমান কমিশনের বিরুদ্ধে নির্বাচন ব্যবস্থাকে ভঙ্গুর অবস্থায় রেখে যাওয়ার অভিযোগ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের। রবি বার প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎ করেছেন সিইসিসহ কমিশন সদস্যরা।

XS
SM
MD
LG