অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশের মানুষ এখন খাদ্যের জন্য ভিক্ষা করে না: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন “সরকার দেশে দারিদ্র্য উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস করেছে এবং এখন মানুষ খাদ্যের জন্য ভিক্ষা করে না।” শনিবার (২৬ নভেম্বর) কর্ণফুলী নদীর তলদেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেলের দক্ষিণ টিউবের সাধারণ কাজ সমাপ্তি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রশ্ন করেছেন, “কেন বাংলাদেশ ১৯৭৫ সাল পরবর্তী ২১ বছর ও ২০০১ সাল থেকে ৮ বছর, মোট ২৯ বছরে উন্নয়নের সাক্ষী হয়নি।” তিনি বলেন, “এই সময়ে যারা ক্ষমতায় ছিল তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করে না এবং সে কারণেই তারা দেশের উন্নয়নের চেষ্টা করেনি।”

শেখ হাসিনা বলেন, “বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পদাঙ্ক অনুসরণ করে দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগ সম্ভাব্য সব কিছু করছে।” বর্তমান সরকারের গৃহীত উন্নয়ন কাজের সংক্ষিপ্ত বিবরণ তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি জানান যে তার সরকার দারিদ্র্য উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস করেছে এবং এখন মানুষ খাদ্যের জন্য ভিক্ষা করে না।

কোভিড-১৯ মহামারী ও রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কথা উল্লেখ করে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বিশ্ব ভুগছে ও অনেক দেশ মন্দা ঘোষণা করেছে, তবে, বাংলাদেশ এখনও এগিয়ে যাচ্ছে।”

বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় শেখ হাসিনা খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে ও প্রতি ইঞ্চি জমিতে সাধ্যমতো উৎপাদন করতে জনগণের প্রতি তার আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, “আমরা কারও কাছে না চেয়ে নিজেদের খাদ্য নিজেরাই উৎপাদন করব।”

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আবারও উল্লেখ করেন, “করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ ও নিষেধাজ্ঞা আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতিটি জিনিসের দাম বাড়িয়েছে।” মুদ্রাস্ফীতিকেএকটি বড় সমস্যা বলে উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা। আর, বিদ্যুৎ, পানি ও জ্বালানি ব্যবহারে মিতব্যয়ী হওয়ার জন্য সকলকে পরামর্শ দেন।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, “আমরা এর বিরূপ প্রভাবের বাইরে নই, বরং ইতোমধ্যে মুখোমুখি হয়েছি। কিন্তু, আমরা এখনও আমাদের অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে সক্ষম।”

XS
SM
MD
LG