অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মোংলা বন্দরে সারবোঝাই লাইটার জাহাজডুবি—৮ কর্মচারীকে জীবিত উদ্ধার


বাগেরহাটের মোংলা বন্দরের বহির্নোঙ্গর এলাকায় একটি জাহাজের সঙ্গে ধাক্কা লেগে `এমভি শাহজালাল এক্সপ্রেস’ নামে একটি লাইটার জাহাজ ডুবে গেছে। মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ১১টার দিকে পশুর চ্যানেলের হারবাড়িয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়, এসময় জাহাজে থাকা ৮ জন কর্মচারীকে আশপাশের নৌযানের কর্মচারী ও কোস্টগার্ড সদস্যরা উদ্ধার করেছেন। সারবোঝাই লাইটার জাহাজটি ডুবে গেলেও পশুর চ্যানেল স্বাভাবিক রয়েছে। তবে সার পানিতে মিশে যাওয়ায় জলজপ্রাণীর ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) মোংলা বন্দরের হারবার মাস্টার ক্যাপ্টেন শাহীন মজিদ বলেন, “এমভি ভিটা অলিম্পিক নামে একটি বিদেশি বাণিজ্যিক জাহাজ ৩১ হাজার ৫৫৯ মেট্রিক টন সার নিয়ে ২১ জানুয়ারি বন্দরের হারবারিয়া এলাকায় ৯ নম্বর অ্যাংকোরেজে নোঙর করে। মঙ্গলবার রাতে ওই বিদেশি জাহাজ থেকে এমভি শাহজালাল এক্সপ্রেস নামে লাইটার জাহাজটি প্রায় ৫০০ মেট্রিক টন সার নিয়ে যশোরের নওয়াপাড়ার দিকে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে অন্ধকার ও ঘন কুয়াশার কারণে ৮ নম্বর অ্যাংকোরেজে থাকা বিদেশি জাহাজ এমভি সুপ্রিম ভেলরের পেছনে লাইটার জাহাজের ধাক্কা লাগে। এ সময় সারবোঝাই লাইটার জাহাজটি ঘটনাস্থলে ডুবে যায়। ডুবে যাওয়া লাইটার জাহাজে থাকা ৮ জন স্টাফকে রাতেই উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে”।

তিনি আরও বলেন, “ডুবে যাওয়া লাইটার জাহাজটিকে উদ্ধারের জন্য মালিক পক্ষকে জানানো হয়েছে। বন্দরের নিয়ম অনুযায়ী ১৫ দিনের মধ্যে মালিকপক্ষকে ডুবন্ত লাইটার জাহাজটি উত্তোলন করতে হবে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জাহাজ উত্তোলন করতে ব্যর্থ হলে বন্দর কর্তৃপক্ষ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। ডুবে যাওয়া লাইটার জাহাজটি মার্কিং করার জন্য বন্দরের একটি টিম আজ দুর্ঘটনাস্থলে রওনা হয়েছে। লাইটার জাহাজটি ডুবে গেলেও বন্দর চ্যানেল স্বাভাবিক রয়েছে। ওই চ্যানেল দিয়ে নির্বিঘ্নে নৌযান চলাচল করছে”।

জাহাজ ডুবিতে সার পানিতে মিশে যাওয়ায় জলজপ্রাণীর ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে বলেও জানান তিনি।

XS
SM
MD
LG