অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে মোবাইল নেটওয়ার্ক বন্ধ


কোন ব্যাখ্যা না দিয়ে হঠাৎ করে বিটিআরসি বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে এক কিলোমিটারের মধ্যে মোবাইল নেটওয়ার্ক বন্ধ করে দিয়েছে। এতে ৩২টি জেলার ১ কোটি মানুষ মোবাইল সেবা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। কি কারণে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে এ সম্পর্কে বিটিআরসি কোন কারণ জানায়নি।

বলা হচ্ছে, নিরাপত্তাজনিত কারণে সরকার সাময়িকভাবে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ওয়াকেবহাল কূটনীতিকরা বলছেন, ভারতে নাগরিকত্ব আইন নিয়ে চলমান আন্দোলনে যাতে কেউ উস্কানি না দিতে পারে সে জন্যই এই ব্যবস্থা। একই সময়ে সীমান্তে মোবাইল নেটওয়ার্ক বন্ধ করেনি ভারত। বাংলাদেশের নেটওয়ার্ক সীমান্তের ওপারে চার থেকে পাঁচ কিলোমিটার পর্যন্ত সক্রিয়। সেখানে ভারতের নেটওয়ার্কের বিস্তৃতি বাংলাদেশের অভ্যন্তরে দশ কিলোমিটার পর্যন্ত।

এ সম্পর্কে টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তফা জব্বার বলেছেন, এটা তাদের একক সিদ্ধান্ত নয়। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ চারটি মন্ত্রণালয় তাদেরকে এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। এরপর বিটিআরসি এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করেছে।

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে বসবাসরত নাগরিকদের মধ্যে এ নিয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। মোবাইল অপারেটররা বলছেন, সরকারের এই সিদ্ধান্তের কারণে প্রায় ২ হাজার টাওয়ার বন্ধ করে দিতে হবে। গ্রামীণ ফোন, রবি, বাংলালিঙ্ক ও টেলিটক এ নিয়ে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে। সবচেয়ে বেশি প্রতিক্রিয়া হয়েছে মোবাইল ফোন গ্রাহক এসোসিয়েশনের মধ্যে। সংগঠনটির সভাপতি মহিউদ্দিন আহমদ বলেন, বিটিআরসি তাদের সঙ্গেও কথা বলেনি। গ্রাহক সেবার দিকেও নজর দেয়নি। কথা নেই বার্তা নেই বিটিআরসি এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের কথা জানিয়েছে। মহিউদ্দিন বলেন, জবাবদিহিতা না থাকায় এভাবে হুটহাট সিদ্ধান্ত নেয়া হচ্ছে। যেখানে গ্রাহকদের স্বার্থের কথা ভাবা হচ্ছে না।

please wait

No media source currently available

0:00 0:02:01 0:00
সরাসরি লিংক



XS
SM
MD
LG