অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

শেখ হাসিনা আবারো আওয়ামী লীগের সভাপতি, সম্পাদক ওবায়দুল কাদের


টানা নয় বারের মতো উপমহাদেশের অন্যতম প্রাচীন রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। ১৯৮১ সালে দিল্লিতে অবস্থানকালে প্রথমবারের মতো আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন তিনি। আওয়ামী লীগের একুশতম জাতীয় সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে কাউন্সিলদের কণ্ঠভোটে এই প্রস্তাব পাস হয়।

দলের সাধারণ সম্পাদক পদে চমক আসতে পারে এমন জল্পনা-কল্পনা থাকলেও শেষ পর্যন্ত ওবায়দুল কাদেরই দ্বিতীয় দফায় এই পদে নির্বাচিত হয়েছেন।

দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে দলের সাড়ে সাত হাজার কাউন্সিলরের উপস্থিতিতে রেওয়াজ অনুযায়ী দলীয় সভাপতি আগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করেন। এর আগে কয়েকজন কাউন্সিলরের বক্তব্য শোনেন। সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর শেখ হাসিনা বলেন, আমি চাচ্ছিলাম আমাকে একটু ছুটি দেবেন। আমার তো বয়স হয়ে গেছে। তিনি বলেন, কেবলমাত্র আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলেই মানুষ সেবা পায়।

সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, দলের প্রতিটি পর্যায়ে দূষিত রক্ত বের করে বিশুদ্ধ রক্ত সঞ্চালন করা হবে। যে শুদ্ধি অভিযান শুরু হয়েছে তা থেমে যায়নি। সকলের রিপোর্ট আমাদের কাছে রয়েছে। ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কাউন্সিলে প্রেসিডিয়াম সদস্য কাউকেই বাদ দেয়া হয়নি। নতুন করে তিনজনকে নেয়া হয়েছে। এরা হলেন- শাহজাহান খান, জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আবদুর রহমান। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে নতুন যুক্ত হয়েছেন ড. হাছান মাহমুদ ও আ. ফ. ম. বাহাউদ্দিন নাছিম। মাহবুবুল আলম হানিফ ও ডা. দীপু মণি বহাল রয়েছেন।

XS
SM
MD
LG