অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে পোশাক শ্রমিকদের ছাটাই-গ্রেফতারে উদ্বিগ্ন আইবিসি


বাংলাদেশে পোশাক শ্রমিকদের মজুরী কাঠামোর অসঙ্গতি দূর করার সাম্প্রতিক আন্দোলনের পর ঢালাও ভাবে শ্রমিক ছাটাই, শ্রমিকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের এবং শ্রমিক গ্রেফতারের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ইন্ডাস্ট্রিয়াল বাংলাদেশ কাউন্সিল(আইবিসি)।

আন্তর্জাতিক শ্রমিক সংগঠন ইন্ডাস্ট্রিঅল গ্লোবাল ইউনিয়ন এর বাংলাদেশ শাখা আইবিসি এক বিবৃতিতে দাবি করেছে আন্দোলনের পর এখন পর্যন্ত ৭০০০ শ্রমিককে চাকুরিচুত্য করা হয়েছে কিংবা কারন দর্শানোর নোটিশ দিয়ে কাজে আসা থেকে বিরত রাখা হয়েছে।

শ্রমিক অসন্তোষের কারন সমাধানে গত ১৩ই জানুয়ারি ত্রিপক্ষীয় যে সমঝোতা হয়েছিল তার উল্লেখ করে আইবিসি বলেছে তাতে সরকার এবং মালিক পক্ষ কোন নিরপরাধ শ্রমিক চাকরি হারাবেনা এবং মামলায় হয়রানি করা হবেনা বলে যে অঙ্গিকার করেছিল তা প্রহসনে পরিণত হয়েছে।

বিবৃতিতে আইবিসি অবিলম্বে শ্রমিক ছাটাই, গ্রেফতার এবং গণহারে মামলায় শ্রমিক হয়রানি বন্ধের দাবি জানিয়েছে। শ্রমিক ছাটাই, গ্রেফতার এবং শ্রমিকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের বিষয় নিয়ে ভয়েস অফ আমেরিকার সাথে কথা বলেছেন আইবিসি এর মহাসচিন সালাহউদ্দিন স্বপন।

এদিকে, শিল্প পুলিশের কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদপত্রে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে পুলিশ এ পর্যন্ত প্রায় ৫০০০ শ্রমিককে বরখাস্ত করার তথ্য যোগাড় করেছে। পোশাক শিল্প মালিকদের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএ শ্রমিক ছাঁটাইয়ের যে সংখ্যা আইবিসি দিয়েছে তার সাথে দ্বিমত পোষণ করে বলেছে আসল সংখ্যা তার চেয়েও কম। বিজিএমইএর সভাপতি সিদ্দিকুর রহামান বলেছেন দেশের শ্রম আইন অনুযায়ী শিল্প মালিকরা শ্রমিক ছাটাইয়ের অধিকার রাখেন। তবে তিনি বলেছেন বিজিএমইএর পক্ষ থেকে নির্দোষ শ্রমিকদের হয়রানি না করার জন্য পোশাক শিল্প মালিক এবং পুলিশকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

please wait

No media source currently available

0:00 0:03:18 0:00

XS
SM
MD
LG