অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সীমান্তবর্তী জেলার মানুষদের ঘরে থাকার পক্ষে মত বিশেষজ্ঞ কমিটির


সীমান্তবর্তী জেলাগুলোতে কমিউনিটি পর্যায়ে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি নিশ্চিত হওয়ার পর আতঙ্ক ছড়িয়েছে। কোভিড নিয়ন্ত্রণে গঠিত জাতীয় পরামর্শক কমিটিও আর অপেক্ষা না করে জেলাগুলোতে সম্পূর্ণ লকডাউন দেয়ার পক্ষে মত দিয়েছে। আগামীকাল রাত ১২টার পর নওগাঁ জেলা ৭ দিনের জন্য লকডাউনে যাচ্ছে। এর আগে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও খুলনার কয়েকটি এলাকায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়।


জাতীয় পরামর্শক কমিটি মঙ্গলবার রাতে এক বৈঠকে মিলিত হয়ে পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে। পরে কমিটির তরফে বলা হয়, সীমান্ত জেলায় জরুরি সেবায় নিয়োজিত ব্যক্তিবর্গ ছাড়া সবাইকে বাড়িতে থাকতে হবে। এই সময় গণপরিবহনও সম্পূর্ণ বন্ধ করতে হবে। বৈঠকে বলা হয়, নাটোর, রাজশাহী, নওগাঁ, সাতক্ষীরা, যশোর, খুলনা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও বাগেরহাটে করোনা পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে। সকল প্রকার রাজনৈতিক, সামাজিক ও ধর্মীয় সমাবেশ বন্ধ করার পক্ষেও কমিটি তাদের মতামত দিয়েছে।

সরাসরি লিংক

সাতক্ষীরা জেলার বিভিন্ন সীমান্তে ৫৯০টি মোবাইল প্যাট্রল টিম কাজ করছে। দায়িত্ব দেয়া হয়েছে বিজিবিকে। চাঁপাইনবাবগঞ্জে পরিস্থিতির কোনো উন্নতি হয়নি। এই জেলায় ২ হাজার ৩৩ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৯৬ জন। স্বাস্থ্য দপ্তর জানিয়েছে, ঢাকায় সংক্রমণ কমলেও ১১টি জেলায় বেড়েছে। ফাইজারের টিকা আগামী ১০ দিনের মধ্যে দেয়া শুরু হবে এমনটাই জানিয়েছেন স্বাস্থ্য দপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক নাজমুল ইসলাম।


গত সোমবার রাতে ১ লাখ ৬২০ ডোজ টিকা ঢাকায় এসেছে। এই টিকা কাদের দেয়া হবে তা এখনও নিশ্চিত নয়। বলা হচ্ছে আগে রেজিস্ট্রেশন করা ব্যক্তিরাই এই টিকা পাবেন। এ নিয়ে একটি কমিটি কাজ করছে।


ওদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণ আরো বেড়েছে। এসময় আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৯৮৮ জন। এটা গত ৫ সপ্তাহের মধ্যে সর্বোচ্চ। মারা গেছেন ৩৪ জন। এ পর্যন্ত দেশে ১২ হাজার ৬৯৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।


করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় শুক্রবার থেকে আরও সাতটি দেশ থেকে বাংলাদেশে ফ্লাইট চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। মঙ্গলবার মধ্যরাতে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ এক বিজ্ঞপ্তিতে এ ঘোষণা দেয়। এর আগে আরও চারটি দেশ থেকে ফ্লাইট প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল বেবিচক। নতুন করে বাহরাইন, বলিভিয়া, মালয়েশিয়া, মালদ্বীপ, প্যারাগুয়ে, ত্রিনিদাদ ও টোবাগো এবং উরুগুয়ের নাম যুক্ত হয়েছে।


তবে মহামারী পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় কলম্বিয়া, কোস্টারিকা, সাইপ্রাস, জর্জিয়া, ইরান, মঙ্গোলিয়া, ওমান, সাউথ আফ্রিকা ও তিউনিশিয়ার ওপর থেকে ফ্লাইট নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়েছে।

XS
SM
MD
LG